Thursday, October 16, 2008

এই ধিক্কারের থুতু থেকে কেউ মুক্ত নই


আফিং খেয়েই চলেছি। নানা মাপের নানা স্বাদের নানা রঙের জোসিলা আফিং। খেতে খেতে অনেক বেলা গড়িয়ে রাত পুড়িয়ে তারপর আবার বেলা পুড়িয়ে রাত গড়িয়ে পল্টি দিয়ে আফিং কিম্বা আফিং দিয়ে পল্টি খাই। আমরা খেতে আর খাওয়াতে ভালোবাসি। চাখতে চাখতে খাই খেতে খেত চাখি। খেতে খেতে আর চাখতে চাখতে নোয়াখালী বিহারে লাশ পড়ে। আবারো খাই। ত্রিশলক্ষ লাশ পড়ে দোরের কাছে ঘরের ভেতর আমার টেবিলে আর মেঝেতে। তারপর পড়তে থাকে তো পড়তেই থাকে। আমরা খেয়েই চলেছি আর পড়েই চলেছি...........

থুতু দিয়ে আফিং খাই। পল্টির সাথে থুতু মাখিয়ে ভুনা ভুনা করে খাই। আমরা নিজেরা থুতু খাই এবং অন্যকে দেই। আমাদের সবার গায়ে থুতু....

শুধু জেনারেল-বিবি-গোলামের পিন্ডি চটকে কী হবে গো? আফিংপট্টি কে বানালো?

বঙ্গবন্ধু! আপনিও মুক্ত নন ধিক্কারের এই থুতু থেকে......



ছবি আজকের প্রথম আলো থেকে

1 comment:

Sujana said...

hey bhaiyah this is sujana =)
hope your doing well in Germany.
Oh yeah dad says to write in english if possible of course. Let me know how your studies are going. Please keep in touch with me my email address is sujana723@yahoo.com.
Sincerely,
Sujana